এবার বাংলাদেশ নিয়ে যা বললেন ভারতীর অধিনায়ক ভিরাট কোহলি

এবার বাংলাদেশ নিয়ে যা বললেন ভারতীর অধিনায়ক ভিরাট কোহলি


ads

চলতি বিশ্বকাপের ৩৮তম ম্যাচে আজ মাঠে নামে ভারত ও ইংল্যান্ড। বাংলাদেশ সময় বিকাল ৩:৩০ মিনিটে শুরু হওয়া এই ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক ইয়ান মরগান।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ৩৩৭ রান করে ইংল্যান্ড। ৩৩৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি ভারতের। রানের খাতা না খুলেই ওকসের বলে তাকে ক্যাচ দিয়ে ফিরেন রাহুল। এরপর ব্যাট হাতে দলের হাল ধরেন কোহলি ও রোহিত।

তবে ব্যক্তিগত ৬৬ রানে ভিন্সের ক্যাচে প্ল্যাঙ্কেটের বলে ফিরেন কোহলি ও ১০২ রান করে ওকসের বলে বাটলারের হাতে ধরা পড়ে ফিরেন রোহিত। এরপর পন্থ ও পান্ডিয়ার ব্যাটে এগিয়ে যেতে থাকে ভারত। সেখানে আঘাত করেন প্ল্যাঙ্কেট।

ওকসের হাতে ক্যাচ দিয়ে ৩২ রান করে ফিরেন পন্থ ও ৪৫ রান করে ভিন্সের হাতে তালুবন্ধি হয়ে ফিরেন পান্ডিয়া। এরপর ধোনি ক্রিজে থাকলেও ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় ভারত। বাংলাদেশি সমর্থকরা ভারতের ধীর গতির ব্যাটিং দেখে শুরু থেকেই অভিযোগ তোলে আজ কি পাতানো ম্যাচ খেলছে ভারত। ভারত হেরেছে ৩১ রানে।

ভারতের ইনিংসের শেষদিকে ধোনি-যাদবের ছন্নছাড়া ব্যাটিং নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক সমালোচনা হচ্ছে।সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই বলছেন চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানকে কৌশলে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় করে দিতেই এমন বাজে ব্যাটিং করেছেন ধোনিরা।

খেলার শেষে বিরাট কোহলি পরের ম্যাচ মানে বাংলাদেশ ম্যাচে ঘুরে দাঁড়ানোর কথা বললেন এবং নিজেদের সর্বোচ্চটা দিয়ে খেলবেন কারণ বাংলাদেশ এখন অনেক ভাল মানের টিম। ভারতীয় অধিনায়ক বলেন, চেষ্টা করেছিলেন এমএস ধোনি। কিন্তু ওরা ভাল বল করেছে। বাউন্ডারি পাচ্ছিলেন না। চেষ্টা করব পরের ম্যাচেই ঘুরে দাঁড়ানোর।

২০০৩ বিশ্বকাপ ফাইনালে রিকি পন্টিংয়ের কাছে বেধড়ক পিটুনির শিকার হয়ে জাভাগাল শ্রীনাথ ৮৭ রান দিয়েছিলেন। গত তিন বিশ্বকাপে সে রেকর্ড আর ভাঙা হয়নি কারও। বিশ্বকাপে ভারতের সবচেয়ে খরচে বোলিংয়ের রেকর্ডটা আজ থেকে চাহালের।

বিশ্বকাপে চাহালের চেয়ে বেশি রান দিয়েছেন এমন স্পিনারই আছেন মাত্র দুজন। একজন রশিদ খান। আর এ দুই লেগ স্পিনারে মাঝে আছেন ডোয়াইন লেভেরক। ২০০৭ বিশ্বকাপে বারমুডার হয়ে ভারতের বিপক্ষে ৯৬ রান দিয়েছিলেন এই বাঁহাতি স্পিনার।

সামাজিক মাধ্যমে ইংল্যান্ড-ভারত ম্যাচ নিয়ে মূল কথা বলা হচ্ছে, ভারত ব্যাটিং-বলিং সকল ক্ষেত্রেই নিজেদের যে উদারতা দেখিয়েছেন তা মূলত বাংলাদেশ, পাকিস্তান এবং শ্রীলংকাকে পেছনে ফেলে দিতেই পাতানো ম্যাচ খেলেছে।

Please Share This Post in Your Social Media

ads

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2019 khelajogbd
Design BY NewsTheme