বিশ্বকাপ থেকে টাইগার ভক্তদের জন্য বড় সুখবর

বিশ্বকাপ থেকে টাইগার ভক্তদের জন্য বড় সুখবর


ads

প্রায় আড়াই মাসের লম্বা সফর, যেকোনো সময় ইনজুরিতে পড়তে পারেন যেকেউ। আয়ারল্যান্ডের ত্রিদেশীয় সিরিজটি ভালোয় ভালোয় শেষ করলেও, বিশ্বকাপ খেলতে এসে সে সমস্যায়ই পড়েছে টিম বাংলাদেশ। প্রায় শুরু থেকেই ব্যথার সঙ্গে লড়াই করে খেলছেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচের দিন সেঞ্চুরি করেও ইনজুরিতে পড়েন সাকিব আল হাসান। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচে খেলতে পারবেন তিনি। আর ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে ম্যাচের প্রস্তুতি নিতে গিয়েই ডানহাতের কব্জিতে চোট পান দলের অন্যতম নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহীম।

এরপর থেকেই সবার মনে চিন্তা, মাঝে আছে মাত্র একদিন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচের আগে সুস্থ্য হতে পারবেন তো মুশফিক? নাকি তাকে বাইরে রেখেই খেলতে হবে গেইল-রাসেলদের বিপক্ষে? তার বর্তমান অবস্থাই বা কী?- এসব প্রশ্নের উত্তর জানতে উন্মুখ টাইগার ভক্ত-সমর্থকরা।

তাদের জন্য রয়েছে সুখবর। জাতীয় দলের ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজন জাগোনিউজকে নিশ্চিত করেছেন কোনো ফ্র্যাকচার ধরা পড়েনি মুশফিকের হাতে। এক্স-রে রিপোর্টের পর জানা গিয়েছে এ তথ্য। তবে মুশফিকের ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করতে হবে আগামীকাল সকাল পর্যন্ত।

আজ (শনিবার) টনটন সময় বিকেল পৌনে পাঁচটার (বাংলাদেশ সময় রাত পৌনে ১০টা) দিকে জাগোনিউজের সঙ্গে মুঠোফোন আলাপে সুজন বলেন, ‘মুশফিকের ব্যাপারে আপাতত খবর হলো, আমরা ওর হাতের এক্স-রে করিয়েছি। সেখানে কোনো ফ্র্যাকচার ধরা পড়েনি। তবে আইসব্যাগ দেয়ার পরেও ফোলা রয়েই গেছে। কাল সকালে আমরা চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারবো।’

এর আগে টনটনের স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় অনুশীলনে নামে বাংলাদেশ দল। শুরুতেই মাঠে ফুটবল নিয়ে কসরত করে পুরো দল। অনেকটা ফুটসাল স্টাইলে ফুটবল খেললো টাইগাররা। মূলত অনুশীলনের শুরুতে ফুটবল নিয়ে শরীর গরম করে তোলা টাইগারদের নিয়মিত অভ্যাস। সেই অভ্যাসবশত কিছুক্ষণ দলের খেলোয়াড়রা ফুটবল খেললেন। মুশফিকুর রহীমও ছিলেন সেই অনুশীলনে বেশ সপ্রতিভ।

ফুটবল নিয়ে কসরত শেষ হওয়ার পর দলের সদস্যরা যোগ দেন ক্যাচিং প্র্যাকটিসে। এই পর্ব শেষ হওয়ার পর ক্রিকেটাররা নেটে গেলেন ব্যাটিং অনুশীলনে। সেখানেই একটি বল মোকাবিলা করতে গিয়ে হঠাৎ মুশফিকের ডান হাতের কব্জির নিচে গিয়ে লাগে।

সঙ্গে সঙ্গে মুশফিককে নিয়ে যাওয়া হয় ড্রেসিংরুমে। সেখানে চলে তার হাতের শুশ্রুষা। বরফ দেয়া হয় আহত স্থানে। তবে বাংলাদেশ দলের মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম তখনই জানিয়েছিলেন, মুশফিকুরের ইনজুরি গুরুতর নয়। শঙ্কারও কিছু নেই।

Please Share This Post in Your Social Media

ads

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2019 khelajogbd
Design BY NewsTheme