রুবেল নয় উইন্ডিজের বিপক্ষে মোসাদ্দেককে একাদশে রাখার কারণ জানালেন বোলিং কোচ

রুবেল নয় উইন্ডিজের বিপক্ষে মোসাদ্দেককে একাদশে রাখার কারণ জানালেন বোলিং কোচ


ads

যদি বিগত ২ বছরের কথা বলি তাহলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের থেকে অনেকগুণ এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ। শেষ দশ বারের দেখায় সাতবার জয় লাভ করেছে বাংলাদেশ দল। আর শেষ চার ম্যাচের মধ্যে ৪ টিতে জয়লাভ করেছে বাংলাদেশ। তবে বিশ্বকাপের এবারের দলটি একটু আলাদা।

দলে ক্রিস গেইল, রাসেল যোগ হয় একটু শক্তিশালী হয়েছে তারা। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই দলটির একাধিক বার হারিয়েছে বাংলাদেশ। মোট দুই দলের ৩৭ দেখায় ১৪ ম্যাচে জয়লাভ করেছে বাংলাদেশ এবং ২১ ম্যাচে জয়লাভ করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। র্যাঙ্কিংয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের থেকে অনেক এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ দল। তবে শেষ ১০ বছরে ২৪ ম্যাচে ১৪ ম্যাচে জয় লাভ করেছে বাংলাদেশ অার ওয়েস্ট ইন্ডিজ জয়লাভ করেছে ১০ ম্যাচে।

আগামী ১৭ জুন দ্বাদশ বিশ্বকাপে নিজেদের পঞ্চম ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ, যে ম্যাচে প্রতিপক্ষ উইন্ডিজ। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচটি বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়ার পর টাইগাররা এই ম্যাচের আগে ৫ দিন সময় পাচ্ছেন নিজেদের ঝালিয়ে নেওয়ার জন্য। এই সময়ে নিজেদের গেম প্ল্যানও প্রস্তুত হচ্ছে, যার কিছুটা আভাস পাওয়া গেল স্পিন বোলিং কোচ সুনীল জোশির কণ্ঠে।

জোশি জানিয়েছেন, টনটনে উইন্ডিজের বিপক্ষে স্পিনই বাংলাদেশের মূল বোলিং অস্ত্র হিসেবে কাজ করবে। সেই সাথে নিজ শিষ্যদের পারফরম্যান্সে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন তিনি।

জোশি বলেন, ‘স্পিনই আমাদের বোলিংয়ের মূল অস্ত্র। সেখানে এখন পর্যন্ত সাকিব-মিরাজ যা করেছে, তাতে আমি খুশি। তার ওপর মোসাদ্দেকের সংযোজন একজন কোচ হিসেবে আমাকে সন্তুষ্ট করেছে।’

টনটনের দ্যা কুপার এসোসিয়েটস কাউন্টি গ্রাউন্ডে ইতোমধ্যে গড়িয়েছে দুটি ম্যাচ। দুটি ম্যাচে মোট পতন ঘটেছে ৩৩টি উইকেটের, যার ৩১টিই শিকার করেছেন পেসাররা! অথচ এই ভেন্যুতেই কিনা টাইগারদের অস্ত্র স্পিন?

জোশির ব্যাখ্যা, ‘আমাদের স্পিনাররা কিন্তু এই বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত সবার চেয়ে ভালো করেছে। একটা উদাহরণ দেই- ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১০০ রানেও যখন উইকেট পড়ছিল না তখন মোসাদ্দেক এসে বোলিং শুরু করে। ঐ সময় দুই ডানহাতি ব্যাটসম্যানকে যেভাবে বোলিং করেছে সে- এক কথায় তা অসাধারণ।সেখানে রুবেল হলে কিন্তু সেটা সম্ভব ছিল নাহ।’

টনটনের গ্রামীণ পরিবেশ উপভোগের পাশাপাশি বাংলাদেশ দল এখন তাকিয়ে আছে সামনে। স্পিন কোচ জানালেন, ‘বেশ খানিকটা সময় আছে। খেলোয়াড়রা শক্তি জমিয়ে রাখছে। আমার বিশ্বাস, এই কয়দিনের বিশ্রাম সবাইকে আরও সতেজ করে তুলবে।’

Share

Please Share This Post in Your Social Media

ads

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2019 khelajogbd
Design BY NewsTheme